যেসব কারণে ঘুমের মধ্যে শরীরে ঝাঁকুনি দেয়!

আপনার কি ঘুমের মধ্যে ঝাকুনি আসছে? আচমকায় কি আপনি ঝটকা খাচ্ছেন? কেবলই আপনার ঘুমে চোখটা বুজে এসেছে আর আপনি তখনই ঝটকা খাচ্ছেন? যদি এমনটি হয়ে থাকে তার জন্য একদম ভয় পাবেন না

এটা আপনার শারীরিক কোনো সমস্যা নয়। এই কথা জানিয়েছেন বড় বড় ডাক্তাররা। আসলে ঘুমের মধ্যে এমন ঝাকুনি কে বলা হয় হিপনিক জার্কস। এমনটা কেন হচ্ছে জানেন? আসলে সবে আমরা যখন ঘুমোতে যাই মানে কেবলই চোখে ঘুম টা আসে তখনই আমরা ঠিক স্বপ্ন

দেখতে শুরু করি আর সেই সময় আমাদের ব্রেন বুঝতে পারে না সে স্বপ্নে আছে না বাস্তবে আছে এই যে সীমানাটা সে বুঝতে পারে না ঠিক তখনই আমরা এমন ঝাকুনি খেয়ে থাকি। অর্থাৎ বাস্তব এবং স্বপ্নের মধ্যে খানে যে সীমানাটা থাকে আমাদের মস্তিষ্ক সেই সময় ঠাহর করতে

পারে না আর ঠিক সেই সময় আমাদের শরীরকে ঝাঁকুনি দিয়ে সে সেটার জানান দেয়। আর এই ঝাঁকুনিকেই বলা হয় হিপনিক জার্কস। এবার আপনাদের মনে প্রশ্ন উঠতে পারে যে মস্তিষ্ক কেন এটা বুঝতে পারে না আসলে এর কারণটা হলো যখন আমরা ঘুমের মধ্যে আস্তে আস্তে

প্রবেশ করি তখন আমাদের গোটা শরীরের পেশি অবশ হতে শুরু করে এবং আমরা তন্দ্রাচ্ছন্ন হয়ে পড়ি। আর ঠিক তখনই মস্তিষ্ক পেশির এই অবস্থান বুঝতে পারে না সেই প্রক্রিয়াকে আটকানোর জন্যই শরীরে এমন ঝাকুনি দিয়ে থাকে।

ঠিক কেন মস্তিষ্ক বুঝে উঠতে পারে না শরীরের অবস্থা?
আসলে শরীরে তন্দ্রাচ্ছন্ন ভাব নেমে এলে মাস্‌ল এবং পেশীগুলো আস্তে আস্তে অবশ হতে থাকে। কিন্তু মস্তিস্ক শরীরে পেশীর এই অবস্থান বুঝে উঠতে না পেরে সেই প্রক্রিয়া আটকানোর চেষ্টা করে, ফলে শারীরে ঝাঁকুনি হয়। যদিও কিছু মানুষ একে শারীরিক অসুবিধা ভেবে ভয় পান।

কিন্তু চিকিৎসকদের মতে এতে ভয় পাওয়ার মতো কিছু নেই। তবে অনেক সময়ে নাক ডাকা থেকেও ‘হিপনিক জার্কস’ ঘটে থাকে। স্নায়ুতন্ত্রের উত্তেজনাপ্রবাহ ঠিকমতো ঠাহর করতে না পারায় এক্ষেত্রে ঘুমের মধ্যে শরীরে ঝাঁকুনি হয়।

About Susmita Roy

Check Also

যে কারনে মহিলাদের হাঁটুর সমস্যা বেশি হয়!

যে কারনে মহিলাদের হাঁটুর সমস্যা বেশি হয়!

আজকাল বেশিরভাগ মহিলাই মহিলাদের হাঁটু ব্যথার অভিযোগ করেন। সে বাড়িতে থাকুক বা কর্মজীবী ​​নারী। আজকাল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.