যেভাবে শিশুর বুকে জমা কফ গলে যাবে!

ঋতু পরিবর্তনের কারণে সবচেয়ে বেশি রোগে আক্রান্ত হয় শিশুরা। হঠাৎ রোদ ও ঠাণ্ডা বাতাসে জ্বর বা বুকে কফ জমাতে শুরু করে। শিশুদের

বুকে কফ জমে গেলে শিশুর সঙ্গে সঙ্গে ভুগতে হয় মা-বাবাকেও। তাছাড়া এই কফ থেকে শিশুর শ্বাসকষ্টও হয়। যা থেকে একসময় নিউমোনিয়া পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে। তাই কষ্ট কমাতে ও বিপদ এড়াতে জেনে নিন শিশুর বুকে জমে থাকা কফ গলানোর কৌশল- 1. দুইটি

রসুনের কোয়া ও এক টেবিল চামচ মৌরি ভাল করে ভেজে বেটে নিন। এবার এই মিশ্রণটি একটি পরিষ্কার কাপড়ে বেধে পুটলি তৈরি করে শিশুর ঘুমানোর স্থানে রেখে দিন। এটি গরম হয়ে এর থেকে বের হওয়া বাষ্প শিশুর বন্ধ নাক খুলে দেবে। এটি শিশুর ঠাণ্ডা দূর করতে সাহায্য

করে। 2. বাচ্চাকে ঠাণ্ডায় টমেটো এবং রসুনের স্যুপ খাওয়াতে পারেন। এটি শরীরে পানির চাহিদা পূরণ করার সঙ্গে সঙ্গে কফ গলিয়ে আরাম দেবে। 3. গরম পানির সঙ্গে এক চামচ মধু এবং লেবুর রস মিশিয়ে খাওয়াতে পারেন। এটিও আপনার শিশুটিকে আরাম দিবে। 4. শিশুর সর্দি

কাশি হলে প্রতিদিন বাচ্চাকে কুসুম গরম পানিতে শিশুটিকে গোসল করাতে হবে। এতে সর্দি বুকে বসতে পারেনা। 5. রোগ জীবাণুর কারণে আপনার শিশুটি ঠাণ্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হয়। এতে সে দুর্বল হয়ে পড়ে। তাই এসময় শিশুর পর্যাপ্ত বিশ্রামের প্রয়োজন। এটি শরীরের

ব্যাকটেরিয়ার বিরুদ্ধে লড়াই করার শক্তি যোগায়। 6. একটি পাত্রে গরম পানি নিয়ে সেটি শিশুটিকে ভাপ দিন। এভাবে শিশুটিকে কিছুক্ষণ রাখুন। গরম পানির ভাব শিশুর নাকের ছিদ্র পরিষ্কার করে দেয়। 7. সর্দি কাশিতে দ্রুত আরাম পেতে শিশুটিকে নাকের ড্রপ দেয়া যেতে পারে।

About Susmita Roy

Check Also

হৃদরোগ ছাড়াও আরো যেসব কারণে বুকে ব্যথা হতে পারে

হৃদরোগ ছাড়াও আরো যেসব কারণে বুকে ব্যথা হতে পারে

হৃদরোগ আজকাল বয়স্কদের ছাড়াও অপ্রাপ্ত বয়স্কদের হয়ে থাকে। দিন দিন এই রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃতের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *