ভেজালের ভীরে বাজারের খাঁটি বিশুদ্ধ ঘি চেনার সহজ উপায়

বাজারে নকল ঘি-র রমরমা। পরিস্থিতি এমন যে আসল ঘি খুঁজে বের করাটাই যেন বড় চ্যালেঞ্জ। ঘি-র নামে কী যে খাচ্ছ আমরা,তার আন্দাজ
করাও কঠিন। ক্ষতিকর রাসায়নিক খেয়ে শরীরের বারোটা বাজছে। ঘিয়ের একাধিক গুণ। শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা থেকে শুরু করে

পাচন শক্তি বৃদ্ধি, পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘি শরীরের অনেক উপকার করে। আসল ঘি টিবি-তে আক্রান্ত রোগীদের সেরে উঠতে সাহায্য করে।
এমনকী, শরীরের দুর্বলতা সারিয়ে তুলতেও ঘিয়ের জুড়ি মেলা ভার। কিন্তু এসব গুণ রয়েছে আসল ঘি-র। নকল খেলে কিন্তু ভালর বদলে খারাপ

হবে বেশি। এবার প্রশ্ন হচ্ছে, আসল ঘি চিনবেন কী করে! কয়েকটা সহজ উপায়ে চেনা যায় আসল ঘি। অনেক সময় রাসায়নিক মেশানো হয় ঘি-তে। আবার অসাধু ব্যবসায়ীরা আলু মিশিয়ে ঘিয়ের ওজন বাড়িয়ে দেয়। এক চামচ ঘি হাতের তালুতে ফেলুন। তার পর সেই ঘি দুই হাতে

ঘষে নিন। যদি দেখেন, দানার মতো কিছু ঘঁষা খাচ্ছে, তা হলে বুঝবেন ঘি আসল নয়। এছাড়া ১৫ মিনিট পর যদি হাত থেকে ঘিয়ের গন্ধ উবে যায়, তা হলেও বুঝবেন ঘি নকল। একটি পাত্রে এক চামচ ঘি ঢালুন। তার পর তাতে কিছুটা চিনি ও হাইড্রোক্লোরিক অ্যাসিড মিশিয়ে দিন।

ভাল করে মেশান। ঘিয়ের রঙ বদলে লাল হলে বুঝবেন রাসায়নিক মেশানো হয়েছে। এক চামচ ঘি-তে আয়োডিন ফেলেও দেখতে পারেন। ঘিয়ের রং নীল হলে বুঝবেন নকল।

About Susmita Roy

Check Also

বিছানার চাদর কত দিন পর পর বদলানো উচিত জানেন!

বিছানার চাদর কত দিন পর পর বদলানো উচিত জানেন!

খাবার খাওয়ার আগে যেমন হাত ধুয়ে খাবার খান, তেমনি প্রতি সপ্তাহে বিছানার চাদর বদলাতে হবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *