আপনার ত্বক রাতারাতি গ্লো করবে যে খাবারে!

আধুনিক সময়ে সৌন্দর্যের সংজ্ঞা বদলাচ্ছে রোজ রোজ। ফর্সা মুখশ্রী, নির্মেদ চেহারা আর এক ঢাল চুল থাকলেই সুন্দর, এই ধারণা আজ আউট অব ফ্যাশন। তবে মসৃণ, উজ্জ্বল ত্বকের কদর সব সময়েই রয়েছে। আর গায়ের রং যেমনই হোক, মুখের ঔজ্জ্বল্য কিন্তু আত্মবিশ্বাস

বাড়ায়। একুশ শতকে আমাদের দেশের অধিকাংশ তরুণ তরুণীই প্রসাধনী বর্জনের বিরুদ্ধে। একে তো হাতে সময় কম। তার ওপর রোজ নানা প্রসাধনী সংস্থার পণ্যে পাওয়া যাচ্ছে ক্ষতিকারক রাসায়নিক। তার চেয়ে প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখার দিকেই ঝুঁকছে আজকের প্রজন্ম।তার ছাপ মুখে পড়বেই। সৌন্দর্য বিশেষজ্ঞ থেকে শুরু করে চিকিৎসক, কেউই এ কথা অস্বীকার করেন না। তবে কি না, এমন বেশ

কিছু খাবার আছে, যা মুখে মাখলে মুখ উজ্জ্বল হয় অনেক। দেখে নেওয়া যাক সেরকম কিছু খাবারের তালিকা- ১. অলিভ অয়েল আপনার দেহের ময়েশচারাইজার হিসেবে কাজ করতে পারে অলিভ অয়েল। সূর্যাস্তের পর বাইরে বেরোলে হাল্কা করে অলিভ অয়েল মেখে বেরোতে পারেন। রাতে শোয়ার আগে নাইট ক্রিম হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন। মেকাপ ধোয়ার জন্য খুব ভালো কাজ করে এটা। ২. বেসন-দুধ দুধে

প্রচুর পরিমাণে ল্যাক্টিক অ্যাসিড থাকায় ত্বকের পুষ্টির জন্য খুব ভাল। দুধ মাখলে ত্বক অনেকটা নরমও হয়। দুধের সঙ্গে একটু বেসন মিশিয়ে সারা মুখে ম্যাসাজ করলে দূষণের কারণে মুখে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার হয়ে যাবে। ত্বকের জন্য মধু খুব উপকারী ৩. কফি আর নারকেল তেল কফি আর নারকেল তেলের মিশ্রণ আপনার মুখ এবং দেহ স্ক্রাবের ক্ষেত্রে খুব কাজ দেবে। তবে ঘনঘন স্ক্রাব করবেন না। আর চোখের আশেপাশে স্ক্রাব করবেন না। সপ্তাহে দু’বার কফি আর নারকেল অথবা আ’মন্ড অয়েলের মিশ্রণ দিয়ে স্ক্রাব করলে দেহের ডেড সেল মরে

যাবে। আরও পড়ুন, বর্ষায় চুলের যত্ন নেবেন কীভাবে? ৪.দই ড্রাই স্কিন অর্থাৎ শুষ্ক ত্বকে দই খুব উপকারী। দইয়ের সঙ্গে মধু, বেসন আর হলুদ দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে ১০ থেকে ২০ মিনিট মুখে মেখে তারপর ভালো করে পরিষ্কার করে নিতে হবে। ত্বক একেবারে বাচ্চাদের মত সতেজ লাগবে। ৫. মধু সেনসিটিভ স্কিনে মধু খুব কার্যকর। অধিকাংশ প্রসাধনীতে মধু ব্যবহার করা হয়। দারচিনি আর মধুর মিশ্রণ মুখে মাখলে মুখের দাগ ছোপ দূর হয়। ত্বক হাইড্রেটেড রাখতে মধুর তুলনা হয় না। ৬. পেপে পেপেতে প্রচুর পরিমাণে আলফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড রয়েছে।

মুখে মেচেতা থাকলে পেপে মাখলে ভালো ফল পাওয়া যায়। পাপাইন উৎসেচক পিগমেন্টেশন দূর করতে সাহায্য করে। পেপে স্ম্যাশ করে থকথকে পেস্ট বানিয়ে ২০ মিনিট মতো মুখে লাগিয়ে রেখে তারপর ঠাণ্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিতে হবে।৭. টমেটো মুখের ডার্ক স্পট মেলাতে গেলে টমেটো মাখলে বেশ কাজ দেবে। দৈনিক ডেড স্কিন মারতেও টমেটো খুব উপকারী। ৮. গ্রিন টি মন খুশি থাকলে তার ছাপ মুখে পড়তে

বাধ্য। দেহ হাইড্রেটেড রাখতে প্রচুর পরিমাণে জল এবং গ্রিন টি খান। আলু আলু খুব বেশি খেলে মোটা হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু আলুর রস যদি মুখে মেখে রাতে ঘুমিয়ে পড়েন, ঘুম থেকে উঠে পরের সকালে মুখটা ধুয়ে নিন। ত্বকের জল ধরে রাখতে সাহায্য করবে আলুর রস। সতেজ লাগবে সারা দিন।

About Susmita Roy

Check Also

চুলের যত্নে অ্যালোভেরার হেয়ার স্পা

চুলের যত্নে অ্যালোভেরার হেয়ার স্পা!

চুল নিয়ে সারা বছর চুল পড়া, খুশকি থেকে শুরু করে চুলের রুক্ষ্ম ভাবের সমস্যায় ভোগেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *