বাসা-বাড়িতে পিঁপড়ার উৎপাত থেকে মুক্তির দুর্দান্ত কৌশল!

গরমের সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে পিঁপড়ার উৎপাত। গরমে স্বাভাবিকভাবে ঘাম হবেই। তবে অবাক করা তথ্য হচ্ছে, ঘামের গন্ধেই পিঁপড়ার উপদ্রপ বাড়ে। আর এর থেকে রক্ষা পেতে কত কিনা করেন সবাই। তবে কিছুতেই যেন কাজ হয় না। ঘরের কোণা থেকে খাবার সব জায়গা

থাকে পিঁপড়াদের অধীনে। তাই এর হাত থেকে রক্ষা পেতে নিজেই তৈরি করুন জাদুকরী স্প্রে। যা নিমিষেই পিঁপড়ার যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেবে। পিঁপড়ারা কোনো উগ্র গন্ধ সহ্য করতে পারে না। ফলে এই স্প্রে ব্যবহারে পিঁপড়া পালিয়ে যাবেই। ঘরে থাকা উপকরণেই তৈরি করা যাবে এই

স্প্রে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক স্প্রে তৈরি পদ্ধতি- স্প্রে বানাতে যা যা লাগবে ৩০ ফোটা লবঙ্গ তেল, ৩০ ফোটা পিপারমিন্ট তেল, পরিমাণ মতো পানি। তৈরি পদ্ধতি একটি স্প্রে বোতলে উপরের সবগুলো উপকরণ এক সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এবার মিশ্রণটি ভালো করে ঝাঁকিয়ে

নিন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেলো। এবার রান্নাঘর থেকে বাথরুম যেখানে পিঁপড়ার উপদ্রব রয়েছে সেখানেই স্প্রে করুন। নিমিষেই মুক্তি মিলবে। এছাড়াও পিঁপড়া তাড়ানোর আরো কিছু টিপস –

১। ভিনেগার – সমপরিমাণে পানি ও ভিনেগার মেশান। ভিনেগারের ক্ষেত্রে হোয়াইট ভিনেগার বা আপেল সাইডার ভিনেগার যেকোনো একটা হলেই হবে। জানালা, মেঝে ও রান্নাঘরের সেলফে স্প্রে করুন। লবঙ্গ– যেকোনো পোকামাকড় তাড়াতে লবঙ্গ ভালো রেপেলেন্ট। পিঁপড়ার গর্তে আস্ত লবঙ্গ ঢুকিয়ে দিন। চিনির পাত্রে কয়েকটি লবঙ্গ ফেলে রাখুন। পিঁপড়া আসবে না। ২। ব্লিচ – ঘর মোছার সময় ব্লিচিং ব্যবহার করুন।

লেবুর রস – একটা মজার বিষয় জানেন কি? পিঁপড়া সাইট্রাস গন্ধ সহ্য করতে পারে না, যা লেবুতে থাকে। ১:৩ অনুপাতে লেবুর রস ও পানি মিশিয়ে পিঁপড়া চলাচল স্থানে ছড়িয়ে দিন। লেবুর খোসা পানিতে ১০ মিনিট সিদ্ধ করে স্প্রে করলেও দারুণ কাজ হবে। ৩। বেকিং সোডা – চিনি গুঁড়া করে তাতে বেকিং পাউডার মিশিয়ে নিন। এবার জারটির মুখ খুলে রেখে দিন। পিঁপড়ারা জারে প্রবেশ করলে কৌটার মুখ বন্ধ করে বাইরে

ফেলে দিন! কফি গুঁড়া – পিঁপড়ার গর্ত কফি গুঁড়া দিয়ে দিয়ে ভরাট করে দিন। কফির তেজী গন্ধ তাদের গতিপথ পাল্টে দিতে বাধ্য করবে। ৪। মসলা – বাড়ির বাইরে, জানালা, দরজা ও দেয়ালের ছিদ্রে গোলমরিচ, লাল মরিচ গুঁড়া ও দারুচিনি গুঁড়া ছড়িয়ে দিন। এতে পিঁপড়ারা ঘরে প্রবেশ করবে না। ৫। তেজপাতা – পিঁপড়া তেজপাতার গাঢ় গন্ধ সহ্য করতে পারে না। পিঁপড়া চলাচল করে এমন স্থানে তেজপাতা রেখে দিলে

উপকার পাবেন। পুদিনাপাতা- ছোট ছোট পাত্রে পুদিনা গাছ লাগান। জানালার উপর, বিছানার পাশে রেখে দিন। দেখুন কেমন কাজ করে! ৬। লালমরিচ – দেয়ালের কিনারে বা যেখান দিয়ে পিঁপড়া চলাচল করে সেসব জায়গায় লালমরিচ গুঁড়া ছড়িয়ে দিন।

About Susmita Roy

Check Also

বিছানার চাদর কত দিন পর পর বদলানো উচিত জানেন!

বিছানার চাদর কত দিন পর পর বদলানো উচিত জানেন!

খাবার খাওয়ার আগে যেমন হাত ধুয়ে খাবার খান, তেমনি প্রতি সপ্তাহে বিছানার চাদর বদলাতে হবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *