যে কারণে আপনার আমলকি খাওয়া উচিৎ!

আমলকি। ভেষজ গুণে অনন্য একটি ফল। এর ফল ও পাতা দুটিই ওষুধরূপে ব্যবহার করা হয়। বিভিন্ন অসুখ সারানো ছাড়াও আমলকি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে দারুণ সাহায্য করে।

আমলকির গুণাগুণের জন্য আয়ুর্বেদিক ওষুধেও এখন আমলকির নির্যাস ব্যবহার করা হয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক এই শীতে কেন আমলকি খাবেন? আর এর কী কী গুণা রয়েছে? রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ভিটামিন সি এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান থাকার জন্য বিপাকের হার

বাড়ে। ভাইরাল এবং ব্যাক্টেরিয়াল আক্রমণের জন্য সর্দি কাশির সঙ্গে যুদ্ধ করতে সাহায্য করে। আমলকি, গুড় আর লবণ দিয়ে ক্যান্ডি বানিয়েও খাওয়া যায়। দিনে তিন চারবার খাওয়ার পরে খাওয়া যেতে পারে। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে প্রচুর পরিমাণে ক্রোমিয়াম থাকায় ডায়াবেটিস

নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। তবে ডায়াবেটিসের রোগীরা ভাববেন না চিকিৎসকের দেওয়া ওষুধের বদলে এগুলো খাওয়া যেতে পারে। বরং ওষুধের পাশাপাশি প্রতিদিনের ডায়েটে রাখতে পারেন আমলকি। ভিটামিন সি-তে ভরপুর কমলালেবুর চেয়ে আট গুণ বেশি ভিটামিন সি রয়েছে

আমলকিতে। বেদানার চেয়ে ১৭ গুণ বেশি অ্যান্টি অক্সিডেন্ট উপাদান রয়েছে। এক গ্লাস পানিতে দু’চামচ আমলকি পাউডার, দু’চামচ মধু দিয়ে খেলে সর্দি কাশিতে খুব আরাম হয়। দিনে তিন চারবার খেতে হবে। চুল ও ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখে অসময়ে চুল পেকে যাওয়া আটকাতে

পারে আমলকি। এছাড়া চুলের গোড়া মজবুত করতে, খুস্কি দূর করতে এবং ত্বকের বুড়িয়ে যাওয়া কমাতেও সাহায্য করে আমলকি। হজম শক্তি বাড়ায় পাচন ক্রিয়ায় খুব সাহায্য করে। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। বদ হজম এবং অ্যাসিডিটিতেও খুব কাজে দেয় এই ম্যাজিক ফল।(সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।)

About Susmita Roy

Check Also

হেঁচকি বন্ধে কাজে লাগান ঘরোয়া এই ৩ টোটকায়!

হেঁচকি বন্ধে কাজে লাগান ঘরোয়া এই ৩ টোটকায়!

বন্ধুদের সঙ্গে রেস্তোরাঁয় খেতে গেলেন, আর তখনই উঠেছে হেঁচকি! এদিকে খাবারের টেবিলে সকলে আপনাকে নিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.