দোকানের মতো মচমচে ও সুস্বাদু বেগুনি বাড়িতেই বানান, রইল সহজ রেসিপি

সন্ধ্যাবেলায় চায়ের সাথে আমাদের বিভিন্ন রকমের মুখরোচক খাবার খেতে ইচ্ছা করে। কিন্তু সবসময় বাইরের তৈরি খাবার খাওয়া উচিত নয়। তাছাড়া বাড়ির বাচ্চাদের বাইরে থেকে কিনে আনা মুখরোচক খাবার সবসময় দেওয়া ঠিক না। আজ এই প্রতিবেদনে ঘরে তৈরি সামান্য কয়টি

উপাদানের সাহায্যে একটি মজাদার জিভে জল আসা ‘বেগুনী ‘ র রেসিপি শেয়ার করা হলো। এটি একদিকে যেমন খেতে খুবই সুস্বাদু হয় এবং খুব সহজেই তৈরি করা যায়। বাড়িতে যদি হঠাৎ করে কোন অতিথি চলে আসে তাহলে আপনি এটা তৈরী করতে পারবেন।

চলুন তবে জনে নেওয়া যাক-

উপকরণ: ১. মোটা মোটা ও লম্বা করে কেটে রাখা বেগুন ২. পরিমানমত লবন ৩. বেসন (১/২ কাপ ) ৪. ময়দা (১/২ কাপ ) ৫. গরমমশলা গুঁড়ো (১/২ চাচামচ ) ৬. সাদা তেল ৭. কাশ্মীরি লঙ্কাগুঁড়ো (১ চা চামচ ) ৮. হলুদ গুঁড়ো (১/২ চা চামচ ) ৯. বেকিংপাউডার (১/২ চা চামচ ) ১০. আদা বাটা (১/২ চা চামচ ) ১১. রসুনবাটা (১ চা চামচ ) ১২. জল (১.৫ কাপ ) ১৩. কালার ( অপশনাল )

প্রণালী:
প্রথমে বেগুন গুলোকে লম্বা লম্বা ও মোটা করে কেটে নিয়ে নুন মাখিয়ে একটি পাত্রে কিছুক্ষণের জন্য ঢেকে রেখে দিতে হবে। এরপর বেগুনি তৈরি করার জন্য একটি ব্যাটার রেডি করে নিতে হবে। একটি পাত্রে একে একে বেসন, ময়দা, গরমমশলা গুঁড়ো, কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ

গুঁড়ো, বেকিং পাউডার, আদা বাটা, রসুন বাটা, দেড় কাপ মত জল, ও কালার দিয়ে খুব পাতলা নয় আবার খুব ঘন ও নয় এমন একটি ব্যাটার তৈরি করে নিতে হবে। এরপর একটি ফ্রাইং প্যানে তেল নিয়ে সেটি ভালো করে গরম করে বেগুন গুলো ব্যাটারে ডুবিয়ে নিয়ে মাঝারি

আঁচে ব্রাউন কালার করে এপিঠ ওপিঠ উল্টে নিয়ে ভেজে নিতে হবে। এরপর এগুলি একটি পাত্রে তুলে নিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন মুচমুচে ‘ফুলকো ফুলকো বেগুনী ‘।

About Susmita Roy

Check Also

৬টি সহজ টিপস, যা আমরা অনেকেই জানি না!

৬টি সহজ টিপস, যা আমরা অনেকেই জানি না!

1. সহজেই ভালো-খারাপ ডিম চেনার উপায় : শহরের এই কাজের চাপে বারে বারে দোকানে যাওয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *