গরম কালে দীর্ঘদিন টমেটো সংরক্ষণ করার সহজ কৌশল

অত্যন্ত পাকা, রসালো টমেটোর গরম কালে অনেকদিন সংরক্ষণ করুন কয়েকটি কৌশলের মাধ্যমে। এখন সংরক্ষণ করে বছরের শেষ পর্যন্ত উপভোগ করতে পারেন। নীচের পদ্ধতি গুলির সাহায্যে টমেটো রান্না করে, হিমায়িত করে, বা বয়ামে ভরে সংরক্ষণ করতে

পারেন। এই পদ্ধতি গুলির মধ্যে কয়েকটির জন্য কিছুটা সময় প্রয়োজন, তবে কোনওটিরই জন্যই বিশেষ দক্ষতা বা ভয়ানক জটিল কিছুর প্রয়োজন হয় না। ১. গরম কালে হিমায়িত করে টমেটো রাখুনঃ পাকা টমেটো গরম কালে বেশিদিন যাবত সংরক্ষণ করার সবচেয়ে সহজ উপায় এগুলোকে হিমায়িত করে রাখা। যতটা পরিমান আপনি রাখতে চান রাখতে পারেন। গরম কালে বাইরে টমেটো রাখলে তা

দ্রুত নষ্ট হয়ে যায়। ফ্রিজের নর্মালে রাখলে দু তিন দিনের মধ্যেই নরম হয়ে যায়। তাই এগুলোকে ফ্রিজারে রাখুন। তবে ফ্রিজারে রেখে অনেকদিন সংরক্ষণ করতে চাইলে নিচে লেখা পদ্ধতি অনুসারে তা স্টোর করুন। টমেটো এনে তা ভালো করে আগে ধুয়ে নিন। তারপর জল ঝরিয়ে নিন। একটি শুকনো পরিষ্কার সুতির কাপড় দিয়ে মুছে নিন। একটি এয়ার টাইট বড় কণ্টেনারে গোটা টমেটো ভরে ফ্রিজারে

রাখুন। রান্না করার এক ঘণ্টা আগে ফ্রিজার থেকে বের করে ব্যবহার করুন। ২. টমেটো পিউরি বানিয়ে সংরক্ষণ করুনঃ টমেটো পিউরি বানিয়ে বহুদিন গরম কালে এটি সংরক্ষণ করার যায়। ঘরে টমেটো পিউরি বানানো খুবই সোজা। টমেটো পেস্ট করে তা রান্না করে নিতে হয় তারপর ঠাণ্ডা করে বোতলে ভরে রাখতে হয়। এটা করার স্টেপ বাই স্টেপ জানতে হলে এই লেখাটি ক্লিক করে পড়ে নিন। বাড়িতে টম্যাটো পিউরি কিভাবে বানাবেন এবং সংরক্ষণ করবেন। ৩. টমেটো খোসা ছাড়িয়ে ক্যানে সংরক্ষণ করুনঃ সম্পূর্ণ খোসা ছাড়ানো

টমেটো গুলিকে বেশিরভাগ লোকেরা টিনজাত টমেটো বলে মনে করে। এগুলি দ্রুত গরম জলে ব্লাঞ্চ করা হয়, তারপর খোসা ছাড়িয়ে বয়ামে ভরে ঢেকে দেওয়া হয়। বয়ামগুলিকে সিল করার জন্য সেদ্ধ করা হয়। এতে চিনির কোন প্রয়োজন নেই। প্রক্রিয়াটি কিছুটা সময় নেয় ও কিছুটা ঝামেলার। যাইহোক, কিন্তু এর জন্য কোন বিশেষ দক্ষতার প্রয়োজন নেই। অতিরিক্ত পাকা টমেটো এবং উপযুক্ত ক্যানিং সরঞ্জামের সাথে যে কেউ এটি করতে পারে এবং টমেটো ক্যানিংয়ের সাহায্যে একবছরের বেশি সময় ভালো থাকে। টমেটো খোসা

ছাড়ানো এবং বয়ামে যাওয়ার আগে এক মিনিটের বেশি সেদ্ধ করার দরকার নেই। তাই এতে কোনও আসল রান্না জড়িত নেই। এই টিনজাত টমেটো রেসিপিটির জন্য লবণের প্রয়োজন নেই, তবে চাইলে স্বাদের জন্য যোগ করা যেতে পারে। লেবুর রস টিনজাত টমেটোকে নষ্ট হতে দেয় না, তাই এটা ব্যবহার করতে ভুলবেন না।

কিভাবে করবেন?
উপকরণঃ ৩ কিলো পাকা টমেটো ১/২ কাপ লেবুর রস প্রথম স্টেপঃ একটি বড় পাত্র বা কেটলিতে জল ফোটান। জল ফুটে উঠলে (যা কিছুক্ষণ সময় লাগবে), প্রতিটি টমেটোর নীচে একটি ছোট “X” করে কেটে নিন ছুরি দিয়ে। বরফের জলের একটি বড় বাটি প্রস্তুত করে রাখুন। জল ফুটে উঠলে টমেটো দিন। এগুলিকে প্রায় এক মিনিটের জন্য রান্না করুন, তারপরে একটি চামচ দিয়ে এগুলিকে তুলুন ও

সরাসরি বরফের জলে স্থানান্তর করুন। যাতে দ্রুত ঠাণ্ডা হয়ে যায়। টমেটো গুলি পর্যাপ্ত ঠাণ্ডা হওয়ার সাথে সাথেই টমেটোর খোসা ছাড়িয়ে ফেলুন। একটি পরিষ্কার খালি বয়াম জীবাণুমুক্ত করার জন্য ১০ মিনিটের জন্য গরমজলে ডুবিয়ে রাখুন। একটি পরিষ্কার কাপড় দিয়ে বয়াম মুছে নিন। এক ফোটাও জল যেন না থাকে।

দ্বিতীয় স্টেপঃ
একটি চায়ের কেটলিতে জল ফোটাতে শুরু করুন। জল ফুটতে থাকা অবস্থায়, বয়ামে ৪ টেবিল চামচ লেবুর রস দিন। তারপর টমেটো দিয়ে সমানভাবে বয়াম ভরুন। টাইট করে ঢাকনা বন্ধ করুন। কেটলির ফুটন্ত জলে বয়াম নামিয়ে দিন৷ বয়াম সম্পূর্ণভাবে ডুবিয়ে রাখতে হবে এবং ১ ইঞ্চি জল দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। জলের স্তর বজায় রাখার জন্য আরও গরম জল যোগ করে ৪৫ মিনিটের জন্য পুরো

সময় ফুটন্ত জলে দিয়ে রান্না করুন। ৪৫ মিনিট পর বয়াম জল থেকে তুলে একটি জায়গায় ২৪ ঘণ্টার জন্য রেখে দিন। বয়াম সঠিকভাবে সিল হয়ে যাবে। এই বয়াম বা জার একটি শীতল, অন্ধকার জায়গায় রেখে সংরক্ষণ করুন। একবছর পর্যন্ত এটা নষ্ট হবে না। দরকারের সময় সিল খুলে প্রয়োজন মত টমেটো নিয়ে আবার যথাস্থানে রেখে দেবেন।

About Susmita Roy

Check Also

৬টি সহজ টিপস, যা আমরা অনেকেই জানি না!

৬টি সহজ টিপস, যা আমরা অনেকেই জানি না!

1. সহজেই ভালো-খারাপ ডিম চেনার উপায় : শহরের এই কাজের চাপে বারে বারে দোকানে যাওয়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *