Wednesday , September 28 2022

শুক্তো বানানোর সিক্রেট মশলা খেতে টেস্ট হবে অনুষ্ঠান বাড়ির মত!

বাঙালির খাদ্য তালিকা মানেই রকমারি রান্না। কেও পছন্দ করে মাছ, মাংস, কেও বা আবার নিরামিষ। আর এই নিরামিষের যতো আইটেম বা পদ রয়েছে তাদের তালিকায় র্শীষে যে খাবারটির নাম চলে আসে তা হল শুক্তো। পাঁচমিশালি সবজি দিয়ে তৈরি করা তৃপ্তিকর একটি পদ।

অনুষ্ঠানে গেলে গরম গরম ভাতের পাতে শুক্তো বেশ মজার একটি খাবার সকলের কাছে। ভাবছেন অনুষ্ঠান বাড়ির মতো যদি ঘরেই শুক্তো বানাতে পারতাম, তবে কতোই না মজা হতো। কিন্তু ঘরে তৈরি শুক্তো ঐ রকম স্বাদের হয় না? ভাবনার দিন শেষ! আজকে সেই রেসিপিই আপনাদের কাছে তুলে ধরবো। শুক্তোর প্রধান স্বাদ আসে হলো এতে ব্যবহৃত মশলা থেকে। চলুন তবে শুক্তোর মশলাটা তৈরি করে নেয়া যাক—

শুক্তো তৈরির একটি সিক্রেট মশলা রেসিপি:
প্রয়োজনীয় উপকরণ: (১০০ গ্রাম মশলা তৈরির জন্য) শুকনো লঙ্কা বা মরিচ ৬ টা কালো জিরা ২ চামচ রাঁধুনি ২ চামচ মৌরি ২ চামচ মেথি ২ চামচ কালো সরিষা ২ চামচ ।
প্রস্তুত প্রণালী: শুরুতে একটি শুকনো তাওয়া বা প্যান গরম করে নিন। তাওয়া গরম হয়ে আসলে তার মধ্যে সব শুকনো উপকরন যথা- শুকনো মরিচ, মৌরি, কলো জিরা, মেথি দিয়ে শুকনো খোলায় (এখানে তাওয়া বা প্যানে তেল দেয়া যাবে না) অল্প আঁচে মিনিট ৫ এর মতো

নেড়ে নিন। এরপর এর মধ্যে রাঁধুনি এবং সরিষা দিয়ে আরও ৩ মিনিট নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিয়ে তা ঠান্ডা করে নিন। (গরম কখনো মিক্সারে গুঁড়ো করবেন না) ঠান্ডা হয়ে গেলে তারপর তা মিক্সারে দিয়ে গুঁড়ো করে নিন। তৈরি হয়ে গেল মশলা। এখন মশলাটা একটি কাঁচের বয়ামে বা কোন এয়ারটাইট বক্সে রেখে অনেকদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করতে পারবেন। শুক্তো তৈরির মশলার রেসিপি তো জানলেন, এখন তা কাজে লাগাবেন কোথায়? শুক্তো কিভাবে তৈরি করতে হয় তাও তো জানতে হবে, তাই না? চলুন তবে শুক্তো তৈরির পদ্ধতিও জেনে আসি-

শুক্তো তৈরির পদ্ধতিঃ
প্রয়োজনীয় উপকরণ: যেকোন সবজি যেমন –পরিমাণমতো আলু, মূলা, ফুলকপি, পেঁপে, সজনে ডাঁটা, উচ্ছে, লাল আলু, বেগুন, কাঁচকলা, বড়ি ইত্যাদি। এছাড়াও লাগবে আদা রসুন বাটা বা পেস্ট ২ টেবিল চামচ লবণ লাগবে পরিমাণ মতো, চিনি স্বাদমতো দুধ ২ কাপ, ময়দা ২

টেবিল চামচ ঘি ১ চামচ (এতে ফ্লেবার ভালো আসে) গোটা মশলা দারচিনি, এলাচ, তেজপাতা, পোস্ত দানা, কালো সরিষা, পাঁচফোঁড়ন, রাধুনি প্রস্তুত
প্রণালী: শুরুতে সব সবজি লম্বা লম্বা করে বা একটু বড় বড় করে কেটে নিতে হবে। একটি পাত্রে কিছুটা জলের মধ্যে হলুদ ও লবণ মিশিয়ে নিয়ে এরপর কাঁচকলা কেটে নিয়ে তাতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। নয়তো কাঁচকলার গায়ে কালো কালো দাগ হয়ে যেতে পারে। এবার একটি কড়াই বা প্যানে কিছুটা সরিষার তেল নিয়ে গরম করে তাতে বড়িগুলো ভেজে নিন বাদামি রং করে। হয়ে গেলে সেই সাথে উচ্ছেটাও ভেজে

নিন।তারপর দারচিনি, এলাচ, রাধুনি তেজপাতা ও পাঁচফোড়ন দিন, গন্ধ বের হলে একে এক সবজিগুলো দিয়ে কিছুটা ভেজে নিন। গ্যাসে মিডিয়াম আঁচে থাকবে। সবজিগুলোর মধ্যে আদা রসুন বাটা দিয়ে নাড়াচাড়া দিয়ে তাতে পরিমাণ মতো লবণ দিয়ে ঢেকে দিন ভাপে সিদ্ধ হওয়ার জন্য। সিদ্ধ হয়ে গেলে তাতে ভেজে রাখা বড়ি গুলো দিয়ে দিন। আগে দিতে যাবেন না, এতে করে বড়ি গলে যাবে। বড়ি দিয়ে আরও কিছু সময় ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন। শুক্তোর জন্য ভাজা মশলা তৈরি করার জন্য চুলায় একচি প্যান বা তাওয়া দিয়ে কিছুটা গরম করে তাতে

রাধুনি এবং পাঁচফোড়ন দিয়ে শুকনো করে ভেজে নিন। তারপর তা ঠান্ডা করে নিয়ে মিক্সারে বা পাটায় গুড়া করে নিন। এরপর ওই মিক্সারে একই সাথে কিছুটা সরিষা ও পোস্ত এবং জল দিয়ে একটা তরল পেস্ট তৈরি করে নিন। এটাই শুক্তোর স্বাদ পরিবর্তন করে দেবে। এবার ঢাকনা খুলে সিদ্ধ করা সবজির মধ্যে এই পেস্ট দিয়ে দিন। এবং হালকা হাতে সবজি ও পেস্ট ভালো করে মিশিয়ে নিন। সবশেষে একটি পাত্রে দুধ

এবং ময়দা নিয়ে নিন। একটি মিশ্রণ তৈরি করুন এং তা শুক্তোর মধ্যে দিয়ে দিন এবংকিছু সময় ধরে তা ফুটিয়ে নিন। হওয়ার কিছুক্ষণ আগে তাতে দিয়ে দিন আগে থেকে তৈরি করে রাখা ভাজা মশলার গুড়ো এবং স্বাদমতো চিনি। আঁচ কমিয়ে কিছুটা ফুটিয়ে নিন। নামানোর আগে উপর দিয়ে ঘি ছড়িয়ে দিন। তৈরি আপনার শুক্তো।

About Susmita Roy

Check Also

কলা পাতায় এইভাবে তালের পিঠা বানালে স্বাদ হয় দুদার্ন্ত!

কলা পাতায় এইভাবে তালের পিঠা বানালে স্বাদ হয় দুদার্ন্ত! শিখে নিন রেসিপি

তালের সুমিষ্ট স্বাদ আর ঘ্রাণ বেশিরভাগের কাছেই পছন্দের। সুস্বাদু এই ফল দিয়ে তৈরি করা যায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.