অ্যালুমিনিয়ামের বাসনে ভুলেও এইসব রান্না করবেন না, বড় ক্ষতি পারে শরীরের!

শরীর ভালো রাখতে আমরা সবসময় বেশি করে সবজি খাই। সবজি যাতে তরতাজা হয় তা নিয়ে আমরা বিশেষ খেয়াল রাখি। তবে বাসন বাছার বিষয়ে আপনার ছোট্ট একটি ভুলের জেরে বড় ক্ষতি হয়ে যেতে পারে শরীরের। এদিকে স্বাস্থ্য ভালো রাখতে অনেকেই তেল ছাড়া

খাবার খাওয়ার দিকে ঝুঁকে থাকেন। তবে পর্যাপ্ত পরিমাণে তেল শরীরে না গেলে তাও ক্ষতি করতে পারে আপনার। রিফাইন না করা তেল বা সর্ষের তেল, ঘি, নারকেল তেল, অলিভ অয়েলের মাধ্যমে রান্না করুন। অ্যালুমিনিয়াম একটি বিষাক্ত ধাতু। তাই অ্যালুমিনিয়ামের বাসনে মাংস রান্নার একটা চল থাকলেও তা শরীরের জন্য ক্ষতিকারক। বিশেষত টক বা অম্লজাতীয় খাবার অ্যালুমিনিয়ামের পাত্রে বেশি

সময় ধরে রান্না করা বা রেখে দেওয়া উচিত নয়। কারণ, এতে অ্যালুমিনিয়ামে থাকা আয়ন খাবারের সঙ্গে বিষক্রিয়া ঘটাতে পারে। তাছাড়া প্লাস্টিক, নন স্টিক বাসনেও শরীরের ক্ষতি হতে পারে কাস্ট আয়রন, সেরামিক, মাটি, কাচ বা স্টেনলেস স্টিলের বাসন ব্যবহার করুন। কালফ্যালন, আনোলন, টেফাল ইত্যাদির রাসায়নিকের ব্যবহার করা হয় নন স্টিক বাসনে। প্রাথমিক ভাবে ঠিক থাকলেও বেশি প্রয়োগের

পর ধীরে ধীরে ক্ষয়প্রাপ্ত হতে থাকে নন স্টিক বাসন এবং এর গুণাগুণ নষ্ট হতে থাকে। এছাড়া প্লাস্টিকের তৈরি বাসন একবার ব্যবহারের উপযোগী বোতল বা অন্যান্য কন্টেনার দীর্ঘদিন পর্যন্ত ব্যবহার করা উচিত নয়। প্লাস্টিক যদি ‘ফুড গ্রেড’ উপকরণ দিয়ে তৈরি হলেই

তবেই তা কিনবেন। কারণ যেসব প্লাস্টিক ‘ফুড-গ্রেড’ নয়, অতি বেগুনী রশ্মি কিংবা মাইক্রোওয়েভ রশ্মির কারণে তাপের সংস্পর্শে এলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে তৈরি হয় ডাই-অক্সেন।

About Susmita Roy

Check Also

হেঁচকি বন্ধে কাজে লাগান ঘরোয়া এই ৩ টোটকায়!

হেঁচকি বন্ধে কাজে লাগান ঘরোয়া এই ৩ টোটকায়!

বন্ধুদের সঙ্গে রেস্তোরাঁয় খেতে গেলেন, আর তখনই উঠেছে হেঁচকি! এদিকে খাবারের টেবিলে সকলে আপনাকে নিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.