যাদের শরীরে এই সমস্যাগুলো রয়েছে তারা ভুলেও কাজু বাদাম খাবেন না

যাদের শরীরে এই সমস্যাগুলো রয়েছে তারা ভুলেও কাজু বাদাম খাবেন না- ‘বাদাম বাদাম দাদা কাঁচা বাদাম, আমার কাছে নাই গো বুবু ভাজা বাদাম’ – ভুবন বাদ্যকরের এই গানে মজেছে নেটদুনিয়া। গান পছন্দ হোক না হোক, বাদাম খেতে অনেকেই পছন্দ করেন। বিশেষ করে

কাজুবাদাম। সান্ধ্য আসরে রঙিন পানীয়র সঙ্গে অনেকেরই সঙ্গী এই বাদাম। পুষ্টিগুণও একাধিক। তবে সকলের শরীরের ক্ষেত্রে কাজুবাদাম (Kaju or Cashew) ভাল নয়। কেন?

চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক-

১) অন্যান্য বাদামের মতো কাজুবাদামেও প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন ও ফ্যাট থাকে। এতে ওজন বাড়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই যাঁদের একটু খেলেই ওজন বেড়ে যাওয়ার ধাত রয়েছে, তাঁদের বেশি কাজুবাদাম না খাওয়াই উচিত।
২) যাঁদের অ্যালার্জির সমস্যা রয়েছে, তাঁদের একটু ভেবেচিন্তেই কাজুবাদাম খাওয়া উচিত। কারণ কাজুবাদাম খেলে অনেকেরই অ্যালার্জি হয়। সুতরাং শরীর বুঝে তবেই এই বাদামের স্বাদ উপভোগ করুন। নয়তো শরীরের অবস্থা করুণ হতে পারে।

৩) স্বাদের পাশাপাশি পরিমাণ বুঝেও কাজুবাদাম খাবেন। বেশি কাজুবাদাম খেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা হতে পারে। আপনার শরীরে কতটা সহ্য হবে, তা আপনিই সবচেয়ে ভাল বুঝতে পারবেন।
৪) কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা যাঁদের রয়েছে, তাঁদের কাজুবাদাম বেশি খাওয়া উচিত নয়। এতে সমস্যা আরও বেড়ে যায়। ভবিষ্যতে এই সমস্যা মারাত্মক রূপও নিতে পারে।

৫) যাঁরা নিয়মিত ওষুধ খান, তাঁদের বেশি কাজুবাদাম খাওয়া উচিত নয়। এমনিতেই বাদাম জাতীয় খাদ্যসামগ্রী ওষুধের কার্যকারিতা কমিয়ে দেয়। ফলে রোগ নির্মূল হতে দেরি হয়। তা বলে কি কাজুবাদাম খাবেন না? নিশ্চয়ই খাবেন! নিজের শরীর-স্বাস্থ্য বুঝে খাবেন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শও নিয়ে নিতে পারেন। পরিমিত হারে কাজুবাদাম খেলে পেটেও সইবে, আবার পিঠেরও জোর বাড়বে।

About Susmita Roy

Check Also

বিরক্তিকর খুসখুসে কাশি সারানোর ঘরোয়া উপায়

বিরক্তিকর খুসখুসে কাশি সারানোর ঘরোয়া উপায়

শীতে কমবেশি সবাই সর্দি-কাশির সমস্যায় ভোগেন। জ্বর-সর্দি যদিও দ্রুত সেরে যায়, তবে কাশি সহজে সারে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *