রক্তে কোলেস্টেরল এর মাত্র নিয়ন্ত্রণে রাখুন এই ৯ টি খাবারে

কোলেস্টেরল যে কোনও মানুষের জন্য নানা ধরনের বিপদের আশঙ্কা বাড়িয়ে দিতে পারে। বিশেষ করে হৃদরোগের আশঙ্কা মারাত্মকভাবে বেড়ে যেতে পারে এর ফলে। কিন্তু আয়ুর্বেদে এমন বেশ কিছু উপাদান রয়েছে, যেগুলি এই সমস্যা কমিয়ে দিতে পারে।

চলুন তবে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক-

আমলকি: কাঁচা আমলিকে খেলে বিপুল উপকার পাওয়া যায়। কিন্তু সেটি সম্ভব না হলে আমলকি চূর্ণ, আমলকির ট্যাবলেট খেতে পারেন। তাতে সমস্যা কমবে।
জিরে, ধনে এবং মৌরি: এই তিনটি দিয়ে পানীয় বানিয়ে নিতে পারেন। চায়ের মতো করে খেতে পারেন। সেটি ভালো না লাগলে তিনটি একসঙ্গে মুখে রাখতে পারেন। ভারী খাবারের পরে এগুি হজম করাতে সাহায্য করবে।

রসুন: খালি পেটে রসুনের একটি করে কোয়া খান। তাতেও কমে যাবে কোলেস্টেরলের মাত্রা
লেবু এবং ভিনিগার: ভারী খাবার খাওয়ার পরে হাল্কা গরম জলে লেবু এবং ভিনিগার মিশিয়ে খান। তাতে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমবে।
আদা: এমনিও মাঝে মধ্যে আদা কুচি খেতে পারেন। সকালে খালি পেটে গরম জলে অল্প আদার গুঁড়ো মিশিয়ে সেটিও খেতে পারেন। তাতেও কোলেস্টেরলের মাত্রা কমবে।

অর্জুন গাছের ছাল: চায়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন এটি। তাতে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমবে। তবে অর্জুন ট্যাবলেটও পাওয়া যায়। সেটিও খেতে পারেন।
গুগ্গুল: ত্রিফলার সঙ্গে মিশিয়ে খেতে পারেন। এমনিও খালি মুখে খেতে পারেন এটি। তাতে কমবে কোলেস্টেরলের সমস্যা।

ত্রিফলা: আমলকি, হরিতকি, বহেরা— এই তিনটি মিশিয়ে ত্রিফলা। সকালে খালি পেটে ত্রিফলার জল খেলে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমে।
যষ্ঠিমধু: চায়ের সঙ্গে খেতে পারেন। আলাদা করে যষ্ঠিমধুও খেতে পারেন। তাতে কমবে কোলেস্টেরলের সমস্যা।

About Susmita Roy

Check Also

যে কারনে মহিলাদের হাঁটুর সমস্যা বেশি হয়!

যে কারনে মহিলাদের হাঁটুর সমস্যা বেশি হয়!

আজকাল বেশিরভাগ মহিলাই মহিলাদের হাঁটু ব্যথার অভিযোগ করেন। সে বাড়িতে থাকুক বা কর্মজীবী ​​নারী। আজকাল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.