বাড়ির আকাশছোঁয়া বিদ্যুৎ বিল সাশ্রয় করুন সহজ এই পদ্ধতিতে!

করোনার জেরে একদিকে মানুষের আয় নিম্নমুখী‌ অপরদিকে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিদ্যুতের বিল। লকডাউনের কারণে পরিবারের প্রায় সকল মানুষই দিনের বেশিরভাগ সময় বাড়িতে থাকছেন, আর বিদ্যুতের বিল বাড়ছে হু হু করে। এহেন পরিস্থিতিতে বিদ্যুতের বিল দেখে সাধারণ

মানুষের মাথায় হাত পড়েছে। তাই বিদ্যুতের বিল সাশ্রয় করার কতকগুলি সহজ উপায় ১) ঘরে যদি অনেকগুলি জানলা থাকে ও প্রাকৃতিক ভাবে ঘরের মধ্যে এমনিতেই আলো-বাতাস প্রবেশ করে তাহলে সেক্ষেত্রে সারাদিনের মধ্যে একটা সময় ঘরের আলো পাখা এগুলি বন্ধ রাখুন। যেমন সকাল থেকে দুপুর অবধি বন্ধ রাখা যায়। ২) প্রতি মাসে একদিন করে ফ্রিজ খালি করে পরিষ্কার করুন। ফ্রিজ পরিষ্কার করার সময়

ঘন্টাখানেকের জন্য ফ্রিজ বন্ধ থাকবে। এতে বিদ্যুতের সাশ্রয় হবে। ৩) কম্পিউটার কাজ হয়ে গেলে সঙ্গে সঙ্গে সুইচ বন্ধ করে দিন এতে বিদ্যুতের সাশ্রয় হবে। ৪) এসি কিছুক্ষণের জন্য চালান, তারপর ঘর ঠান্ডা হয়ে গেলে সেটা বন্ধ করে দিন। এর ফলে অনেকক্ষণ ফ্যান চালানোর দরকার পড়বেনা। বিদ্যুৎ ও বাঁচবে আর বিদ্যুতের বিল ও সাশ্রয় হয়ে যাবে। ৫) বিদ্যুতের অহেতুক অপচয় যেন না হয় সেই দিকটা

মাথায় রাখুন। যখন দেখবেন যে আবহাওয়া ঠান্ডা ঠান্ডা, পাখা চালানোর প্রয়োজন নেই, তখন ফ্যান বন্ধ রাখুন। দিনের বেলা অহেতুক লাইট জ্বালিয়ে রাখবেন না। অর্থাৎ যখন দেখছেন যে প্রয়োজন নেই তখন ফ্যান লাইট বন্ধই রাখার চেষ্টা করুন। ৬) অনেক ক্ষেত্রেই এমন হয় যে ল্যাপটপ মোবাইল ফোন ও ক্যামেরা চার্জের পরও চার্জার প্লাগের মধ্যে দেওয়া থাকে। কিন্তু এটা করবেন না। ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন ও

ডিজিটাল ক্যামেরা ইত্যাদি চার্জ দেওয়া হয়ে গেলেই চার্জার খুলে রাখুন। অনেকেই হয়তো জানেন না, চার্জার প্লাগ ইন করে রাখলে বিদ্যুতের খরচ হয়। ৭) এলইডি আলো লাগিয়ে রাখুন ঘরে। কারণ এলইডি আলোর ফলে বিদ্যুতের সাশ্রয় হয়।করোনার জেরে একদিকে মানুষের আয় নিম্নমুখী‌ অপরদিকে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বিদ্যুতের বিল।

About Susmita Roy

Check Also

বিছানার চাদর কত দিন পর পর বদলানো উচিত জানেন!

বিছানার চাদর কত দিন পর পর বদলানো উচিত জানেন!

খাবার খাওয়ার আগে যেমন হাত ধুয়ে খাবার খান, তেমনি প্রতি সপ্তাহে বিছানার চাদর বদলাতে হবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *